Friday, March 1, 2024

পলেথিনে মোড়া অর্ধগলিত লাশ, ঝিনাইদহে রোমহর্ষক খুনের রহস্য উন্মোচন

তারিখ:

নিখোঁজের চারদিন পর পলিথিনে মোড়ানো অর্ধগলিত লাশ উদ্ধারের ঘটনার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, উদ্ধার করা হয়েছে হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্রপাতি। মঙ্গলবার (১১অক্টোবর) শৈলকুপা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার অমিত বর্মণ এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, রোমহর্ষক ওই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করেছেন তারা।

গত ৯ অক্টোবর মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে মাটি খুঁড়ে হাফিজুর রহমান (৪০) নামের ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। লাশ উদ্ধারের ২দিন পর গ্রেফতার করা হয়েছে ২ আসামিকে।

ব্রিফিংয়ে পুলিশ জানায়, গত ৫ অক্টোবর নিখোঁজ হন হরিণাকুণ্ডু উপজেলার রিশখালী গ্রামের হাফিজুর রহমান। ৭ অক্টোবর তার ছোটভাই জাফিরুল ইসলাম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করলে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। ওইদিন সন্ধ্যায় একই গ্রামের আলমগীর নামে এক ব্যক্তিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন ৯ অক্টোবর মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে একটি খালের ধার থেকে হাফিজুর রহমানের পলিথিনে মোড়া গলাকাটা অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ উদ্ধারের পরপরই জাহিদ নামে আরও একজনকে আটক করে পুলিশ।

আটকদের দেয়া তথ্যমতে, পূর্ব শত্রুতার জেরেই এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। নিখোঁজ হওয়ার দিন রাতেই দা দিয়ে কুপিয়ে হাফিজকে হত্যা করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যে হত্যায় ব্যবহৃত দা, কোদাল, জিআই তার, পলেথিন, ঘটনাস্থলের রক্তমাখা মাটি ও ভিকটিমের মোবাইল ফোন উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে নিহতের ভাই জাফিরুল ইসলাম বাদী হয়ে হরিণাকুণ্ডু থানায় ১৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে।

জনপ্রিয় সংবাদ