Friday, February 23, 2024

খারকিভে অন্তত ১০টি ‘নির্যাতন স্থাপনা’ পাওয়া গেছে: জেলেনস্কি

তারিখ:

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর খারকিভে অন্তত ১০টি এমন স্থানের সন্ধান পাওয়া গেছে যেগুলোকে নির্যাতনের কাজে ব্যবহার করতো রাশিয়া, এমনটাই দাবি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জেলেনস্কির।

শনিবার প্রকাশিত এক ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি জানান, “নির্যাতন স্থাপনাগুলোর” মধ্যে একটি রেলওয়ে স্টেশনও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। তার দাবি অনুযায়ী, সেখানে নির্যাতনের কাজে ব্যবহৃত বৈদ্যুতিক সরঞ্জামেরও সন্ধান পাওয়া গেছে।

রাশিয়ার প্রতি নিন্দা জানিয়ে ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট বলেন, রুশ বাহিনীর দখলাধীন এলাকাগুলোতে মানুষের উপর ব্যাপকভাবে নির্যাতন চালানো হতো বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ খারকিভের গুরুত্বপূর্ণ শহর ইযিয়ুমে একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়ার পর সেখানে তদন্ত কাজ শুরু করেছে। সেখানে কি পরিমাণ লোক হতাহত হয়েছে তা নিশ্চিত করেনি কর্তৃপক্ষ।

যদিও এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে মস্কো। মানবাধিকারের প্রশ্নে রাশিয়া তার অবস্থান ঠিক রেখেছে বলেও দাবি করেছে দেশটি।

তবে এসব ঘটনায় এরইমধ্যে পুতিনের বিচারের দাবিতে একমত পোষণ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো।

জাপানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এনএইচকে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইউক্রেনীয় বাহিনী দেশটির পূর্বাঞ্চলের অধিকাংশ এলাকা পুনর্দখল করে নিয়েছে এবং এখন দক্ষিণাঞ্চলে তাদের পাল্টা আক্রমণ জোরদার করে চলেছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, এখনও তার দেশের যথেষ্ট সামরিক সামর্থ্য রয়েছে। রাশিয়া এখন পর্যন্ত শুধুমাত্র চুক্তিভিত্তিক সেনাদের ব্যবহার করছে যারা দেশটির সামরিক শক্তির একটি অংশ মাত্র।

গতকাল শনিবার রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায় যে, তাদের বাহিনী খেরসনসহ বিভিন্ন এলাকার পাশাপাশি পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্কেও হামলা চালিয়েছে।

জনপ্রিয় সংবাদ