Monday, February 26, 2024

পর্দা উঠছে এশিয়া কাপের; পরিসংখ্যান অনুসারে দেখে নিন কারা এগিয়ে

তারিখ:

কাল পর্দা উঠছে এশিয়া কাপের ১৫তম আসরের। আসরের মোট ১৩টি ম্যাচের ১০টিই অনুষ্ঠিত হবে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। বাকি ৩টি ম্যাচ হবে শারজায়। কেমন হতে পারে এবারের আসরে ব্যাট-বলের লড়াই? কারা এগিয়ে থাকছে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে, দেখে নিন কী বলছে পরিসংখ্যান।

এবারের আসরে ১৩টি ম্যাচের ১০টিই অনুষ্ঠিত হবে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এই মাঠে এখন পর্যন্ত ৭৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ৩৯টিই জিতেছে আগে বোলিং করা দল। আগে ব্যাট করা দল জয় পেয়েছে ৩৪ বার। এখানে প্রথম ইনিংসের গড় রান ১৪২, যেটা দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১২৪। দুবাইয়ে এগিয়ে আছে রান তাড়া করা দল।

দেখে নেয়া যাক দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের বোলিং পরিসংখ্যান। এখানে ৭৪ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৭.৯৮ ইকোনমি রেটে পেসাররা উইকেট নিয়েছে ৫২৭টি। স্পিনাররা নিয়েছে ৬.৮৩ ইকোনমি রেটে ৩৪৯ উইকেট। গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৩ ম্যাচে দুবাইয়ে পেসারদের উইকেট সংখ্যা ছিল ৬৫, ইকোনমি রেট ৮.৮৩। অন্যদিকে, স্পিনাররা মাত্র ৬.৪৮ ইকোনমি রেটে দখল করেছিলেন ৫৫ উইকেট। অর্থাৎ, এখানে পেসারদের উইকেট সংখ্যা অনেক বেশি হলেও কম রানে বেঁধে রাখাতে সফল স্পিনাররা।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। এখানে অনুষ্ঠিত হবে মাত্র ৩টি ম্যাচ। শারজায় ২৫ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ১৬টিতেই জিতেছে আগে ব্যাট করা দল। মাত্র ৯টি জয় এসেছে পরে ব্যাট করে। প্রথম ইনিংসের গড় রান ১৫০; দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১২৫।

শারজায় ২৫ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পেসারদের উইকেট সংখ্যা ১৬৩। ইকোনমি রেট ৭.৫১। স্পিনাররা এখানে তুলেছে ১৩০ উইকেট। ইকোনমি রেট ৬.৫৯। গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শারজায় ১১ ম্যাচে ৭.৮৯ ইকোনমি রেটে পেসারদের ৬০ উইকেটের বিপরীতে ৬.৭১ ইকোনমি রেটে স্পিনাররা নিয়েছিল ৫৫ উইকেট। বোলিংয়ের চিত্রটা দুবাইয়ের সঙ্গে মিলে যায়। উইকেট বেশি পেসারদের, ইকোনমি রেটে এগিয়ে স্পিনাররা।

এশিয়া কাপের সেরা দশ রান সংগ্রাহকের তালিকায় আছেন এমন ৩ জন খেলবেন এবারের আসরে। দুই ভারতীয় রোহিত শর্মা ও ভিরাট কোহলির সাথে আছেন একমাত্র বাংলাদেশি মুশফিকুর রহিম। সেরা উইকেট শিকারীদের তালিকায় টিকে আছেন সময়ের সেরা দুই অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও রবীন্দ্র জাদেজা। এখন পর্যন্ত এশিয়া কাপে টুর্নামেন্ট সেরাদের তালিকায় দুই বাংলাদেশি ছাড়া আর কেউ নেই এবারের আসরে। এই দুজন হচ্ছেন সাকিব আল হাসান ও সাব্বির রহমান।

জনপ্রিয় সংবাদ