Sunday, February 25, 2024

ইউপি নির্বাচনে বৈধতা পেল বাবা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীর মনোনয়ন

তারিখ:

নাগেশ্বরীতে ইউপি নির্বাচনে বৈধতা পেয়েছে বাবা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীর মনোনয়নপত্র। বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) যাচাই বাছাই শেষে এটি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার আনোয়ার হোসেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার জানান, গত ২ নভেম্বর ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। চেয়ারম্যান পদে ভিতরবন্দ ইউনিয়নে বাবা-ছেলে ও বামনডাঙ্গা ইউনিয়নে স্বামী-স্ত্রীসহ ১৪ ইউনিয়নে মোট ৯৭ জন, সদস্য পদে ৪৯৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৭৯ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আজ মনোনয়নপত্র যাটাই-বাছাইয়ে ভিতরবন্দ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান উপজেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি শফিউল আলম শফি, তার ছেলে ফয়সাল শামীম, বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আমজাদ হোসেন ব্যাপারী ও তার সহধর্মীনি মরিয়ম বেগমসহ মোট ৯৩ জনের মনোনয়ন বৈধতা পায়। বাতিল হয়ে যায় নেওয়াশী ইউনিয়নের বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলন মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মান্নান, নুনখাওয়ার চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবুল হোসাইন, রামখানা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুস সাত্তার, বল্লভেরখাসের স্বতন্ত্র প্রার্থী নুর আলম প্রধানের মনোনয়ন। এছাড়াও সাধারন সদস্য পদে ১৫ জনের ও সংরক্ষিত সদস্য পদে ৮ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

এদিকে বৈধতা পাওয়া বাবা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীর মনোনয়ন নিয়ে শুরু হয়েছে বিস্তর আলোচনা। তারা কি শেষ পর্যন্ত ভোটের লড়াইয়ে নিজেদের রাখবেন, নাকি ১ জন করে সরে দাঁড়াবেন? অনেকের ধারনা নিজেদের মধ্যে সংশয় থেকে তারা এ মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। যাতে কোনো কারণে ১ জনের মনোনয়ন বাতিল হলে অন্যজন যেন সে লড়াইয়ে থাকতে পারেন। সেক্ষেত্রে বাবা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রীর মধ্য থেকে ১ জন করে তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিবেন।

এ বিষয়ে ভিতরবন্দ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা শফিউল আলম শফি জানান, আমি নির্বাচনে আছি, থাকব। আমার ছেলে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেবে। একই কথা বলেন বামনডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন। আগামী ২৮ নভেম্বর উপজেলার ১৪ ইউনিয়নে ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

জনপ্রিয় সংবাদ